ব্যবসা বিশ্বব্যাপী সম্প্রসারণের নিরাপদ ও লাভজনক স্থান বাংলাদেশ

“ব্যবসা বিশ্বব্যাপী সম্প্রসারণের নিরাপদ ও লাভজনক স্থান বাংলাদেশ” -- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

স্টকহোমঃ ১২/০৫/২০১৭

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, ব্যবসা বিশ্বব্যাপী সম্প্রসারণের নিরাপদ ও লাভজনক স্থান বাংলাদেশ। ১৬০ মিলিয়ন লোকসংখ্যার বিশাল এই বাজার কৌশলগত কারণে ভারত ও মিয়ানমারের ৮০০ মিলিয়ন লোকসংখ্যার বাজারে পরিণত হতে পারে। অর্থ লগ্নীকারি প্রতিষ্ঠান, ম্যানুফেকচারার বা সেবা প্রদানকারি প্রতিষ্ঠান সহজেই এ বাজারে প্রবেশ করতে পারবে।

প্রতিমন্ত্রী আজ সুইডেনের স্টকহোমে ওয়াল্ড ট্রেড সেন্টারে, সুইডেন-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল আয়োজিত “ সুইডিশ এনার্জি সিস্টেম এন্ড সাস্টেইনেবল সলিউশন” শীর্ষক বিজনেস সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন। তিনি বলেন, আইএমএফ (IMF) ২০১৬ সালে বাংলাদেশকে দ্রুত বর্ধনশীল মেজর অর্থনীতির দেশসমূহের মাঝে দ্বিতীয় বলে ঘোষনা করেন এবং এইচএসবিসি (HSBC ) পূর্বাবাস দেন যে, ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ২৩ তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ হবে। এখানে বিনিয়োগকে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা দেয়া হয়, কর পদ্ধতি সহজ ও কম খরচে কর্মী পাওয়া যায়।

সুইডিশ এনার্জি এজেন্সির পরিচালক যুসেফিন বার জাংডেল (Josephine Bahr Ljungdell)-এর সঞ্চালনায় সুইডেনের হিফাব(HIFAB), রেজিন(REGIN), ভল্ভ (VOLVO), মিলযো অচ(MILJO-OCH), কাসান্দ্রা অয়েল (CASSANDRA OIL), এবিবি(ABB), মারকুরি আরভাল(MARCURI URVAL), এক্সপেন্ডো ইন্টারন্যাশনাল( EXPANDOR INTERNATIONAL), এসবিএইচ সুইডেন (SBH SWEDEN), ইন্ডসেন রেজর(INDCEN RESOR), কালস এয়ারলাইন্স(KALES AIRLINES), এইচ এন্ড এম (H&M), লিমরা আইটি সলিউশন(LIMRA IT SOLUTIONS), স্করলাইন ম্যানেজমেন্ট (SCORELINE MANAGEMENT) প্রভৃতি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। পাওয়ারসেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সম্ভাবনা এবং স্রেডার সদস্য সিদ্দিক যোবায়ের নাবায়ণযোগ্য জ্বালানি নিয়ে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন ও বক্তব্য দেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৫০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের সুযোগ সৃজন হয়েছে। এ সুযোগ কাজে লাগাতে সুইডেনসহ ইউরোপীয় দেশসমূহকে তিনি আহবান জানান।

এ সময় অন্যানের মাঝে বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত যোহান ফ্রিসেল (JOHAN FRISELL ) উপস্থিত ছিলেন।